দেবীদ্বারে বাল্য বিয়ে আয়োজনের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতে বর-কণের পিতাসহ ৩ জনের জেল

DEBIDWAR (COMILLA) PIC; - BAILLO BEA'R DAYEA BORSOHO 3JONER DONDO-  17.04 (1)এবিএম আতিকুর রহমান বাশার,দেবীদ্বার।।প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে দেবীদ্বারে বাল্য বিয়ে সম্পাদনের প্রস্তুতিকালে আটক বর, বরের সৎ ভাই ও কনের পিতাকে ভ্রাম্যমান আদালত জেল-জরিমানা করেছে। শুক্রবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে বর মেহেদী হাসান(১৬)কে এক হাজার টাকা, ভাই ইব্রাহীম খলিল(৩২) এক হাজার টাকা ও কনের পিতা মোসলেম উদ্দিনকে দুই হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ৫ দিনের জেল প্রদানের রায় দেন। ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম তার দপ্তরে উন্মুক্ত আদালত বসিয়ে সাক্ষ্যপ্রমান সাপেক্ষে ১৯২৯ সালের বাল্য বিয়ে আইনে ওই রায় প্রদান করেন। অভিযুক্ত সকল আসামী জরিমানার টাকা প্রদান পূর্বক কারাদন্ড থেকে মুক্তি নেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বর-কণে প্রেমের টানে ঘর ছাড়া হয়েছিল। তাদেরকে ফিরিয়ে এনে স্থানীয় কিছু লোক বিয়ের আয়োজন করলেও বরের পিতা ওই বিয়েতে সম্মত ছিলনা। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ছেপাড়া গ্রামের অলি উল্লাহর পুত্র মেহেদী হাসান(১৬)’র সাথে একই গ্রামের মোসলেম মিয়ার কণ্যা বাকসার উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী জুলেখা আক্তার(১২)’র বিয়ের আয়োজন করেন। বিষয়টি সম্পর্কে প্রশাসন অবগত হওয়ার পর স্থানীয় ইউপি মেম্বারের মাধ্যমে বাল্য বিয়ে বন্ধের পরামর্শ দেন এবং বিয়ে সম্পাদনের চেষ্টা করলে বিয়ে সম্পাদনকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহনের বিষয়টিও অবগত করেন। এ নির্দেশ অমান্য করে বিয়ের সমস্ত আয়োজন সম্পাদন এমন কি মৌলভী, কাজীর উপস্থিতিতে বিয়ে সম্পাদনের চেষ্টাকালে দেবীদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস, আই) মুরশেদুল আলম ভুইয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিয়ে বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বর মেহেদী হাসান(১৬), সৎভাই ইব্রাহীম খলিল(৩২), কনে পিতা মোসলেম উদ্দিন(৫০), বরের পিতা অলিউল্লাহ(৫০), মৌলভী ও কাজীসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। বরের পিতা অলিউল্লাহ(৫০), মৌলভী ও কাজীকে স্থানীয় ইউপি মেম্বারের জিম্বায় মুচলেকার মাধ্যমে ছেড়ে দেয়া হয়। অপর দিকে বর মেহেদী হাসান(১৬), সৎভাই ইব্রাহীম খলিল(৩২), কনে পিতা মোসলেম উদ্দিন(৫০)’কে শুক্রবার দুপুরে ভ্রম্যমান আদালতে হাজির করলে তাদের বিরুদ্ধে ওই দন্ডাদেশ প্রদান করা হয়। এসময় দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান, এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ, পুলিশ, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

-অননিউজ/সম্পাদনা: সা আ/ /১৭এপ্রিল ১৫