বন্যার্তদের ত্রাণ আত্মসাতের অভিযোগে গ্রেফতার ৩

arrest-20170830161434অননিউজডেক্স।।নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য বরাদ্দকৃত ত্রাণের চাল কালো বাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে পাচারের সময় চালসহ ৩ ব্যক্তিকে আটকের ঘটনায় ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

কেন্দুয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে বলাইশিমুল ইউপি চেয়ারম্যান আলী আকবর তালুকদার মল্লিক, কর্মচারী ইলিয়াস, সাদেক মিয়া, অটোচালক জুয়েল মিয়া ও জুলহাস মিয়াকে আসামি করে এ মামলা করেন।

এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রফতার করা হয়। গ্রেফতার সাদেক মিয়া, অটোরিকশাচালক জুয়েল মিয়া ও জুলহাস মিয়াকে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে বুধবার দুপুরে নেত্রকোনা আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের কৃষকদের বিশেষ ত্রাণ (ভিজিএফ) প্রদানের লক্ষ্যে গত এপ্রিল মাসে ওই ইউনিয়নের ৩৭৬ জন কৃষকের নাম অন্তর্ভুক্ত করে একটি তালিকা করা হয়।

তালিকাভুক্ত প্রত্যেক কৃষককে গত মে মাস থেকে প্রতি মাসে ৩০ কেজি চাল ও ৫০০ টাকা করে দেয়া হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত রোববার ৩০৮ জন সুবিধাভোগীর মধ্যে আগস্ট মাসের চাল ও টাকা বিতরণ করা হয়।

তবে ওইদিন ৬৮ জন সুবিধাভোগী অনুপস্থিত থাকায় তাদের ৪০ বস্তা চাল পরবর্তীতে বিতরণের জন্য ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে মজুদ রাখা হয়।

গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে চেয়ারম্যানের নির্দেশে ইউনিয়ন পরিষদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সাদেক মিয়া দুটি অটোরিকশাযোগে ওই ৪০ বস্তা থেকে ১৬ বস্তা চাল কালো বাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে পাচার করে। খবর পেয়ে কেন্দুয়া থানা পুলিশ বলাইশিমুল ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে থেকে চালসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করে।

মামলার বাদী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জাগো নিউজকে জানান, চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে না থাকলেও গ্রেফতার সাদেক মিয়ার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে চেয়ারম্যানকে আসামি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সিরাজুল ইসলাম জাগো নিউজকে জানান, এ ঘটনায় থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে এবং ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে গ্রেফতারদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

-অননিউজ/সম্পাদনা/পলি আক্তার  /৩০ আগস্ট ১৭ইং