স্বাস্থ্য সেবাভিত্তিক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে সরকার

20140903124603PMডেস্ক, অননিউজ।। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চিকিৎসা সুবিধা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সারাদেশে স্বাস্থ্য সেবা ভিত্তিক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে সরকার। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া আঞ্চলিক কমিটির চার দিনব্যাপী বৈঠকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি বাংলাদেশ এখন সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য মাত্রা অর্জনের পথে বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রান্তিক মানুষের কাছে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের সফলতা ঈর্ষনীয়। গ্রামের প্রতি ৬ হাজার মানুষের জন্য একটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক নিশ্চিত করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের। এরই মধ্যে চালু হয়েছে ১৩ হাজারেরও বেশী। স্বাস্থ্যখাতে ডিজিটাল পদ্ধতি প্রবর্তনের মাধ্যমে দেশব্যাপী গড়ে তোলা হয়েছে ব্যাপক ভিত্তিক স্বাস্থ্যসেবা নেটওয়ার্ক। চালু হয়েছে ই হেলথ ও টেলি মেডিসিন সেবা।

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের সম্মেলন উদ্বোধন করতে গিয়ে বাংলাদেশের এসব সফলতার কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন বিশ্বের এক চতুর্থাংশ মানুষের এই অঞ্চলে স্বাস্থ্যসেবার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় চাই সমন্বিত উদ্যোগ।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের এই অঞ্চলে সব দেশের প্রায় একই ধরণের অর্থনৈতিক, সামাজিক ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থা বিদ্যমান। এই অঞ্চলেই রোগ ও মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশী। আমরা সবাই মিলে এই অঞ্চলের স্বাস্থ্যসেবার আরও উন্নতি করতে পারলে বিশ্বের স্বাস্থ্য সমস্যা ব্যাপক উন্নয়ন হবে। আমি আশা করি সংস্কার কর্মসূচী বাস্তবায়নের মাধ্যমে ওয়ার্ল্ড হেলথ অরগেনাইজেন আরও গতিশীল প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে এবং তাদের সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে আরও বেশী কারিগরি সহায়তা দিতে পারবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার মূল ধারায় সম্পৃক্ত করা হয়েছে সংক্রামণ ব্যাধি নিয়ন্ত্রণ, অটিজম ও মানসিক স্বাস্থ্য কার্যক্রমকে।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এমডিজি ৫ অর্জনের ক্ষেত্রে আমরা সঠিক পথে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা পলিও কুষ্ঠরোগ নিয়ন্ত্রণ করেছি। ম্যালেরিয়া, যক্ষ্মা, অ্যাভিয়ান, ইনফ্লুয়েঞ্জা, অ্যান্থ্রাক্স ইত্যাদি সংক্রামক ব্যাধি নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। আমার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ, পেশায় একজন শিশু মনোরোগ বিশেষজ্ঞ, অটিজম মোকাবিলায় বিশ্বের সমর্থন আদায়ে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে চাইলে এই অঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠীর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে হবে।

-অননিউজ/সম্পাদনা: সা আ/৯সেপ্টেম্বর১৪